দায় কি শুধু বঙ্গবন্ধু কন্যার ?

12.01, 01.06.2021

আজ দীর্ঘ ১২ বছরে ক্ষমতার মোহে আমরা ভুলে গেছি, ভুলে যাচ্ছি দুর্দিনের রাজপথের সহযোদ্ধাদের, সহকর্মীদের……

 

দায় কি শুধু বঙ্গবন্ধু কন্যার ?

এডভোকেট নাজমা কাওসার

 

প্রকৃত আওয়ামী লীগারদের, আমাদের  আজ মনে হয় কিছু কথা খুব গুরুত্ব সহকারে ভাবা প্রয়োজন। কিছু আত্মসমালোচনা কিছু আত্মসংশোধন আমাদের বোধ করি জরুরী ।

 

৭৫ এ বঙ্গবন্ধুর স্বপরিবারে নির্মম হত্যার পরবর্তী ২১ বছর আওয়ামী লীগের চরম দুর্দিনে ঘোর অমানিশায়, যারা জেল জুলুম,পুলিশি নির্যাতন, ঘাতক রগকাটা শিবিরের অত্যাচার, জিয়া, এরশাদ, খালেদা ও তাদের সহযোগী রাজাকার আলবদর জামায়াত শিবিরের সকল অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বুকে ধারণ করে, জীবনবাজি রেখে নিত্যদিন রাজপথে লড়াই সংগ্রামে আন্দোলনে মিছিলে মিটিংএ  হরতালে ছিলো অকুতভয়, স্লোগানে স্লোগানে ছিলো মুখরিত, আমার আজকের বক্তব্য তাদের ঘিরে ।

আমাদের যে সহযোদ্ধা চলে গেছেন এ পৃথিবী ছেড়ে অথবা জীবনের নানান জটিল হিসেব নিকেশে আজ ভালো নেই, কিন্তু হৃদয়ে ধারণ করছে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, এখনও প্রত্যাশায় আছে, স্বপ্ন দেখে একটি অসাম্প্রদায়িক সুখী সমৃদ্ধশালী দূর্ণীতিহীন সোনার বাংলাদেশের,  তাদের প্রতি কি থাকবেনা আমাদের কোনো সামান্য সৌজন্যতা কিংবা দায়িত্ব কর্তব্য ?

সেই সহযোদ্ধা সহকর্মীর সন্তান পরিবারের প্রতি কিছু নৈতিক দায়িত্ব কর্তব্য অবশ্যই আমাদের উপর বর্তায় বলেই আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

তাঁরাও ছিলো উত্তাল আন্দোলনে, মিছিলে, স্লোগানে, লাঠিচার্জ, টিয়ারগ্যাস আর মামলা হামলায় দিনের পর দিন ছিলো গৃহহারা কিংবা জেলে!! দলের জন্য ত্যাগ জেল জুলুম পুলিশী নির্যাতন, শ্রম ঘাম রক্ত সব আমরা ভুলে যাবো নির্দ্বিধায় অবলীলায় !!   ……..


আওয়ামী দুর্দিনের দুঃসময়ের নেতা কর্মীরা অনেকেই বেঁচে থাকতে সঠিক মূল্যায়িত হবেনা , অসুস্থতায় অর্থাভাবে চিকিসিৎসা পাবেনা, পাবেন না কোনো সহযোগিতা ! আবার মরে গেলেও আমাদের সব দায় দায়িত্ব কর্তব্য শেষ হয়ে যাবে! আমরা ভুলে যাবো তাঁরাও ছিলো উত্তাল আন্দোলনে, মিছিলে, স্লোগানে, লাঠিচার্জ, টিয়ারগ্যাস আর মামলা হামলায় দিনের পর দিন ছিলো গৃহহারা কিংবা জেলে!! দলের জন্য তাদের ত্যাগ জেল জুলুম পুলিশী নির্যাতন, শ্রম ঘাম রক্ত সব আমরা ভুলে যাবো নির্দ্বিধায় অবলীলায় !!

তাঁদের সন্তানরা না খেয়ে থাকবে, অর্থের অভাবে শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হবে, আমরা দেখেও না দেখার ভান করবো!?

আমরা ভুলে যাবো ওরাও ছিলো আমাদের সাথে অথবা আমাদেরও আগে। দেশের জন্য দলের জন্য তাদের অবদান আমার আপনার চাইতে বেশি বৈ কম নয় কিছুতেই!!

আজ দীর্ঘ ১২ বছরে ক্ষমতার মোহে আমরা ভুলে গেছি, ভুলে যাচ্ছি দুর্দিনের রাজপথের সহযোদ্ধাদের সহকর্মীদের!!

অথচ অনেকেই তো আজ ক্ষমতার সুবিধাভুগি, আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ! রিকশায় চড়ার সামর্থ যার ছিলোনা সে আজ প্রাডো চালায় ! বস্তি থেকে অনেকেই সরাসরি রাজপ্রাসাদে আজ!

সব না হয় মেনেই নিলাম, শুধু একটা অনুরোধ ভুলে যাবেন না ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয় ! মরতে ও হবে একদিন। কি জবাব দেবে সেদিন মহান আল্লাহ পাকের কাছে!!

শুধু মনে রাখুন সেই দুর্দিনের ১২, ২৪, ৪৮,৭২ ঘন্টার হরতালে ঘরে ভাত নেই জেনেও সে রিকশা ওয়ালা কিংবা দরিদ্র কর্মীটির কথা, যে ছাত্র যুবক রাজপথে ছিলো অনড় অবস্থান, তাঁর কথা ! কেমন আছে কি করছে সে আজ ? ক্ষমতার সুফলের ছিটেফোঁটাও জুটেছে তাঁর কপালে!! অথচ তাঁদের শ্রমে ত্যাগে আওয়ামী লীগ আজ ক্ষমতায় !

আপনারা আজ এম পি, মন্ত্রী, বড় বড় নেতা, শিল্পপতি, ব্যবসায়ী! ক্ষমতার মসনদের সৌভাগবান অংশীদার!!

দায় কি শুধুই বঙ্গবন্ধু কন্যার একা ?! আমাদের কি কোনো দায় নেই!? ভুলে গেলে চলবেনা একজন শেখ হাসিনা আছেন বলেই আমরা এখনো এই বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের কথাবলি, এখনো মুক্ত আকাশে নিশ্বাস নিতে পারি!!

এখনো সময় আছে মহা সর্বনাশ হবার আগেই আসুন, আমরা আমাদের ভুলগুলো শোধরাতে চেষ্টা করি, নিজেরা বিবাদে না জড়িয়ে ঐক্যবদ্ধ হই। অতি তেলবাজি চামচামি, সুবিধাবাদী চরিত্রকে বদলাতে চেষ্টা করি।

তাই আসুন, আমরা আমাদের বিপদগ্রস্ত অসহায় জীবিত সহযোদ্ধা বা মৃত সহযোদ্ধার সন্তান ও পরিবারের পাশে ক্ষুদ্র পরিসরে হলেও দাঁড়াতে চেষ্টা করি! আল্লাহ আমাদের শুভবুদ্ধি দিন।

পরিশেষে মহান আল্লাহ পাকের নিকট প্রার্থনা, তিনি আমাদের প্রিয় নেত্রী, প্রিয় আপা, জননেত্রী শেখ হাসিনাকে দেশের সেবায় দীর্ঘ হায়াৎ দান করুন। আমিন।

 

 

(এডভোকেট নাজমা কাওসার : সিনিয়র আইনজীবী, রাজনৈতিক কর্মী ও চেয়ারম্যান, সেফগার্ড বাংলাদেশ )

 

 

 



newsbankbangla.com
নিউজ ব্যাংক বাংলা ডট কম
উপদেষ্টা সম্পাদক : রিয়াজ হায়দার চৌধুরী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *